Total Pageviews

Its Awesome!

Wednesday, July 12, 2017

 2:19 PM         No comments




ভারতের রেলওয়ের প্রতিষ্ঠা হয়েছিল ব্রিটিশদের হাতে। এর পেছনে মুল কারণ ছিল মিলিটারি ও ব্যবসায়িক। বিশাল ভারতের এখানে সেখানে বিদ্রোহ দমন করার জন্য দ্রুত সৈন্য সামন্ত এখান থেকে সেখানে পাঠাবার জন্য অত্যন্ত জরুরী ছিল তাই রেলপথ। আর সে কারণেই কি না কে জানে, ভারতের রেলপথের নিয়ম কানুন অত্যন্ত কড়া। ভারতের রেলে কিছু কাজ আছে, যেগুলো শুনতে মনে হবে খুব সাধারণ, কিন্তু সেগুলো করলে আপনাকে নিশ্চিতভাবে জেলের ভাত খেতে হবে।
 
কিছুদিন আগে এক বাংলাদেশি পর্যটক ভারতের রেলস্টেশনে সেলফি তুলতে গিয়ে রেল-পুলিশের হাতে ধরা পড়েন এবং তাকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা জেরা করা হয়। এই প্রেক্ষিতে তাই আমরা চেয়েছি যেন আপনি কিছু জিনিস জেনে রাখুন, যাতে এরকম বিব্রতকর পরিস্থিতিতে আপনাকে পড়তে না হয়। সেই বাংলাদেশি ভদ্রলোককে এমনকি পাকিস্তানি স্পাই সন্দেহও করা হয়েছিল। এরকম সন্দেহের ফলাফল অত্যন্ত ভয়াবহ হতে পারে। তাই আসুন, জেনে নেই কোন কোন কাজগুলো করা যাবে না।
 
ছবি তোলা: ভারতের রেল স্টেশনে ও রেলগাড়িতে ছবি তোলা নিষিদ্ধ। এই কাজটি করলে আপনাকে অত্যন্ত সমস্যার মাঝে পড়তে হবে, কয়েকবছরের জেল হয়ে যেতে পারে মুহূর্তের বিচারেই। মূলত নিরাপত্তা কারণে এই কাজটি করা হয় বলে জানা গেছে। আপনাকে বুঝতে হবে, রেল একসময় মিলিটারি কাজে ব্যবহার হত, আর তারা এখনও সেরকম মিলিটারি নিয়মেই বিষয়গুলো দেখতে পছন্দ করে।
 
রেলের এলাকায় সেলফি তোলা সাংঘাতিক অপরাধ। ছবি: সংগৃহীত।
 
সেলফি তোলা: ভারতের রেল স্টেশনে ও রেলগাড়িতে সেলফি তুলতে গিয়ে ইতোমধ্যেই প্রাণ হারিয়েছেন বেশ কিছু মানুষ। এমনিতেও ছবি তোলা নিষেধ, এই কারণে সেলফি তোলা মানুষদের পাবলিক সেফটি রুলের আওতায় পাঁচ বছরের জেলের বিধান দিতে ইতোমধ্যেই আবেদন করেছে ভারতীয় রেল।
 
খাওয়া তো দুরের কথা, অনুমতি ছাড়া বহন করাও নিষিদ্ধ। ছবি: সংগৃহীত।
 
মদ্যপান: ভারতীয় রেল এর কোন জায়গায়, তা স্টেশন হোক আর রেলগাড়ি হোক, কাউকে মদ্যপান করতে দেখলে সাথে সাথেই তার বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানা যায়। জেলে কাটিয়ে আসতে হতে পারে কয়েক মাস থেকে কয়েক বছর। মূলত মদ্যপান করে নারী যাত্রীদের বিরক্ত করার ইতিহাস থেকে এই নিয়ম করা হয়েছে। মদ্যপান করা তো নিষেধই, না পান করে সাথে করে বোতল নিয়ে যেতেও দরকার হয় বিশেষ অনুমতি। কোন কারণে যদি আপনার লাগেজ তল্লাসি চালানো হয় আর সেখানে পাওয়া যায় মদের বোতল, তাহলেও আপনি পড়বেন বিপদে।
 
কার্ড খেলা: রেলে চলার সময় কার্ড খেলা নিষিদ্ধ করবে বলে ভাবছে ভারতীয় রেল। কার্ড খেলা কিভাবে রেলের সমস্যা তৈরি করে সেটা অবশ্য বোঝা মুশকিল। তবে অনুমান করলে বলা যায়, কার্ডের সাথে জুয়ার একটা সম্পর্ক আছে আর জুয়ার সাথে মারামারি খুনোখুনির একটা বড় সম্পর্কও আছে। কার্ড খেলার শাস্তি হিসেবে পাঁচ বছরের জেল এর বিধানের জন্য আবেদন করেছে রেল কতৃপক্ষ।
 
রেলের আশে পাশে সমস্যা তৈরি করতে পারে এমন যে কোন কাজই নিষিদ্ধ। ছবি: সংগৃহীত।
 
এছাড়াও রেল চলার সময় সামনে দিয়ে চলে যাওয়া বা খুব কাছে দাড়িয়ে থাকাও অপরাধের মধ্যে পড়ে। রেল লাইনে কোন কিছু রাখা যেটা বাধা সৃষ্টি করতে পারে, সেটাও অপরাধ। তবে এগুলোর সাথে একজন পর্যটক হিসেবে জড়িয়ে যাবার সুযোগ নেই বললেই চলে আপনার। তাও জেনে রাখা ভাল!
 
এছাড়াও আরও অনেক খুঁটিনাটি নিয়ম আছে যেগুলো এলাকা-ভেদে ভিন্ন হতে পারে। সেরা উপায় হল আপনি যখন রেলে উঠবেন, স্টেশন থেকেই কারও সাথে কথা বলে নিশ্চিত হয়ে নিন যে বিশেষ কিছু নিয়ে আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে কি না।
 
এমনিতে, স্টেশনে ঢুকতেও দরকার হয় স্বল্প দামের স্টেশন টিকিট। বিনা স্টেশন টিকিটে ধরা পড়লে রয়েছে শাস্তি। আর বিনা টিকিটে রেলে চড়তে গিয়ে ধরা পড়লে রয়েছে আরও বেশি শাস্তি। সবসময় যে সব নিয়ম মেনে চলি আমরা তা নয়। কিন্তু বিদেশের মাটিতে কোন সমস্যায় পড়লে আপনার যে বিপদটা হবে, সেটা চিন্তা করে হলেও আপনাকে থাকতে হবে অনেক বেশি সতর্ক ও সচেতন।
 
সম্পাদনা ড. জিনিয়া রহমান।
আপনাদের মতামত জানাতে ই-মেইল করতে পারেন zinnia@priyo.com এই ঠিকানায়।
Reactions:

0 comments:

NetworkedBlogs

Popular Posts

Recent Posts

Text Widget

Blog Archive