Total Pageviews

Its Awesome!

Monday, June 5, 2017

 3:11 PM         No comments
বাংলাদেশে প্রকাশিত অনেক ধরণের কোরআন শরিফ পাওয়া যায়। ছাপার মান, সাইজ, বাঁধাই ইত্যাদি প্রকারভেদে এগুলোর  মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল: নুরাণী, হাফেজি, কলিকাতা, লাহোরী ছাপা ইত্যাদি কোরআন শরিফ। চলুন জেনে নেই পবিত্র কোরআন এর বিভিন্ন ধরন সম্পর্কে।
কোরআন, তরজমা ও তাফসির এর সংগ্রহ দেখতে ক্লিক করুন


- নূরাণী ছাপা: নুরাণী ছাপা হল অধ্যায়নের জন্য। বিশেষত যারা বাড়িতে শিক্ষকের কাছে কোরআন শিখেন তাঁদের জন্য সহজ যুক্ত অক্ষরগুলো যথাসম্ভব পৃথক করে লেখা থাকে।

- হাফেজি কুরআনঃ হাফেজি কোরআন শরিফ হল বিশ্বজনীন স্বীকৃত কোরআন শরিফ। বিশেষত কোরআন শরিফ হিফজ করার জন্য এই কোরআন শরিফ ব্যবহার করা হয়। কোরআন শরিফের পারা ও পৃষ্ঠা নাম্বারগুলো সাধারণত এই কোরআন শরিফ থেকে ব্যবহার করা হয়। হাফেজি কোরআন শরিফের পৃষ্ঠা নাম্বার একই রকম হয়ে থাকে, এতে কোন পরিবর্তন হয় না। কাগজের মান ছাড়া সকল প্রকাশনীই একই ধরণের পৃষ্ঠা নাম্বার ব্যবহার করে থাকে। 
হাদিস ও সুন্নাত এর সকল বই দেখতে ক্লিক করুন

​- লাহোরী ছাপাঃ লাহোরী ছাপার কোরআন শরিফ হল প্রায় হাফেজি কোরআন শরিফের মতই। তবে হাফেজি কোরআন শরিফের সাথে পার্থক্য হল যে, হাফেজি কোরআন শরিফে সবগুলোর পৃষ্ঠা নাম্বার একই রকম থাকে আর লাহোরী ছাপার কোরআন শরিফে পৃষ্ঠাগুলো একই রকম থাকে না। একেকটি কোরআন শরিফ একেক রকমের হয়ে থাকে।  লেখাগুলো বড় বড় ও পড়তে সুবিধা হয়। এ ধরণের কোরআন শরিফ ১৩ - ১৭ ছত্রী অর্থ্যাৎ ১৩-১৭ লাইন হয়ে থাকে।
রোজা ও সিয়াম বিষয়ক বই দেখতে ক্লিক করুন

- কলকাতা ছাপা: বাংলা অঞ্চলে সবচেয়ে প্রাচীন ছাপার কোরআন শরিফ হল কলকাতা ছাপার কোরআন শরিফ। কলকাতা অঞ্চলে বড় বড় অক্ষরে লেখা কোরআন শরিফ হল কলকাতার কোরআন শরিফ। সাধারণত বয়স্ক লোকেরা কলকাতা ছাপার কোরআন শরিফ ব্যবহার করে থাকেন। তাছাড়া চোখের সমস্যার কারণেও এ ধরণের ছাপা ব্যবহার করে থাকেন অনেকেই।
ইসলামি শাসনব্যবস্থা ও রাজনীতি বিষয়ক বই দেখতে ক্লিক করুন

এছাড়াও  আরো বিভিন্ন রকমের কোরআন শরিফ পাওয়া যায়। কোন কোন কোরআন শরিফে শুধু মাত্র আরবি থাকে। এগুলোর কোনটির সাইজ বড় অর্থ্যাৎ সাধারণ বইয়ের মত হয়ে থাকে আবার কোনটি পকেট সাইজ যা সাধারণত সাইজে ছোট হয় যা পকেটে রাখার মত হয়।
মূল আরবি ও উচ্চারণসহ কোন কোন  কোরআন শরিফ পাওয়া যায়, সাথে কোন কোন কোরআন শরিফে সংক্ষিপ্ত তাফসিরও থাকে। কোন কোন কোরআন শরিফ আবার পারা পারা ভাগে বিভক্ত থাকে এবং পারাগুলো বিভক্ত থাকে। কোরআন শরিফ বাধায়ের ক্ষেত্রেও বিভিন্ন ধরণের হয়ে থাকে কোনটি সাধারণ বোর্ড বাধাই কোনটি হয়ত প্লাস্টিক তথা বাধাইটা প্লাস্টিক দিয়ে বাধাই করা আবার জেকেট দিয়ে বাধাই করা। সাধারণত বাঁধাইয়ের ভিন্নতাগুলো পৃথকভাবে কোরআন শরিফের গায়ে লেখা থাকে।
 

 

​শুভকামনা,
রেদোয়ানুল হক
Reactions:

0 comments:

NetworkedBlogs

Popular Posts

Recent Posts

Text Widget

Blog Archive