Total Pageviews

Its Awesome!

Tuesday, March 7, 2017

 9:42 PM         No comments
থাইল্যান্ড এর একটি সামুদ্রিক কচ্ছপের পাকস্থলী থেকে ৯৫১ টি মুদ্রা পাওয়া গেছে, যা  সৌভাগ্যের আশায় দর্শনার্থীরা ছুঁড়ে দিয়েছিলেন পানিতে।

এসোসিয়েট প্রেস (এপি) এর রিপোর্টে বলা হয় যে, থাইল্যান্ড এর পূর্ব উপকূলীয় শহর শ্রী রাচা এর পশুচিকিৎসকগণ একটি কচ্ছপের পেট থেকে অপারেশনের মাধ্যমে এই মুদ্রাগুলো অপসারণ করেন গত ৬ মার্চ এ। এটি ছিল ২৫ বছর বয়স্ক একটি সবুজ রঙের নারী কচ্ছপ, যার ডাকনাম ব্যাংক। সে দীর্ঘদিন যাবৎ এই মুদ্রাগুলো গিলেছিলো।   
থাইল্যান্ডে একটি অন্ধবিশ্বাস প্রচলিত আছে যে, ভাংতি মুদ্রা কচ্ছপের উপর ছুড়ে মারলে ব্যক্তির দীর্ঘায়ু এবং সৌভাগ্য লাভ হয়। সামুদ্রিক এই কচ্ছপটির গিলে ফেলা মুদ্রার ওজন ছিল ১১ পাউন্ড বা ৫ কিলোগ্রাম। এই মুদ্রার ওজনের ফলে কচ্ছপের পেটের খোলসটিতে ফাটল ধরে এবং সে সংক্রমণে আক্রান্ত হয়।
ব্যাংক এর পেটে থেকে পাওয়া মুদ্রার ওজন ছিলো ৫ কিলোগ্রাম। ছবি সংগৃহীত।
ব্যাংক কে তখন চুলালংকর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরেনারি বিভাগে নেয়া হয় যেখানে ৫ জন ভেটেরেনারি সার্জন ৪ ঘন্টা সময় নিয়ে এই মুদ্রাগুলো অপসারণ করেন (অনেকগুলো মুদ্রাই জারিত হয়ে গিয়েছিলো)। ব্যাংক কে সাধারণ চেতনানাশক দিয়ে করা হয় এই অপারেশন।
মুদ্রার ওজনের ফলে কচ্ছপের পেটের খোলসটিতে ফাটল ধরে এবং সে সংক্রমণ এ আক্রান্ত হয়। ছবি সংগৃহীত।
অস্ত্রোপচার দলের সদস্য পেসাকর্ণ ব্রিক্সাবন এপিকে বলেন, ফলাফল সন্তোষজনক, এখন এটি নির্ভর করে ব্যাংক এর উপর যে সে কত দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠতে পারে।
এপি জানায়, ব্যাংক এখন চুলালংকর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের পশু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে যেখানে সে সুস্থ হয়ে উঠবে। তাকে ২ সপ্তাহের জন্য তরল খাবার দেয়া হচ্ছে।
সবুজ সামুদ্রিক কচ্ছপ দীর্ঘজীবী হয়, এরা গড়ে ৮০ বছর পর্যন্ত বাঁচে। ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কঞ্জারভেশন অফ নেচার (IUCN) এই প্রজাতিটিকে ‘বিপন্ন’ প্রজাতি হিসেবে তালিকাভুক্ত করেছে। এর সংখ্যা ক্রমশ কমছে এবং বিলুপ্তির ঝুঁকির মধ্যে আছে। IUCN এর মতে সবুজ  সামুদ্রিক কচ্ছপের বিলুপ্তির প্রধান হুমকি হচ্ছে এর ডিম সংগ্রহ করা, আবাসস্থলের অবনতি এবং মাছ ধরার জালে জড়িয়ে যাওয়া।
ব্যাংক এখন চুলালংকর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের পশু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। ছবি সংগৃহীত।
চুলালংকর্ণ ইউনিভার্সিটি ভেটেরিনারি মেডিকেল অ্যাকুয়াটিক এনিমেল রিসার্চ সেন্টার এর প্রধান এবং অস্ত্রোপচার দলের দলনেতা নান্তারিকা চানসুয়ে এপি কে বলেন যে, ‘ব্যাংক এর ভোগান্তি নিয়ে তিনি খুব রেগে গিয়েছিলেন’।  
চেনসুয়ে এপি কে বলেন, ‘আমি খুবই রাগান্বিত অনুভব করেছিলাম এ কারণে যে, মানুষ কোন চিন্তা করা ছাড়াই অথবা না বুঝেই এমন কাজ করেছিলো যার কারণে কচ্ছপের ক্ষতি হয়েছিলো’।
সূত্র লাইভ সায়েন্স
Reactions:

0 comments:

NetworkedBlogs

Popular Posts

Recent Posts

Text Widget

Blog Archive