Total Pageviews

Its Awesome!

Monday, January 30, 2017

 1:14 PM         No comments
কয়েকটি স্কুল-কলেজের কিছু ছাত্র আড্ডা দিতে দিতে গড়ে তোলে ছোট ছোট গ্রুপ। একসঙ্গে ঘোরাঘুরি, খাওয়া, খেলা আর আড্ডার মধ্য দিয়ে ‘লেটস ফান’ টাইপ জীবনযাপন কখন যে কীভাবে সহিংস হয়ে উঠল, এ নিয়ে কথা বলতেও এখন চরম ভয় পায় গ্রুপের সদস্যরা। রাজধানীর উত্তরায় পাঁচটি গ্যাং পার্টি রয়েছে। এসব গ্যাং পার্টির সদস্য সংখ্যা প্রায় অর্ধশত, যাদের অধিকাংশই কিশোর।

গত ৬ জানুয়ারি ১৩ নম্বর সেক্টরের ১৭ নম্বর রোডে ট্রাস্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র আদনান কবিরকে হত্যার পর উত্তরা ঘিরে কিশোর গ্যাং পার্টির নানা অপতৎপরতার তথ্য বেরিয়ে আসতে থাকে।
বিগবস, ডিসকো বয়েজ উত্তরা, পাওয়ার বয়েজ উত্তরা, নাইনএমএম বয়েজ উত্তরা ও নাইনস্টার নামে সক্রিয় এসব কিশোর শুরুতে মূলত ‘পার্টি’ করা, হর্ন বাজিয়ে প্রচণ্ড গতিতে মোটরসাইকেল চালানো ও রাস্তায় মেয়েদের উত্ত্যক্ত করার কাজে যুক্ত ছিল। বছর খানেক ধরে তারা নিজেদের মধ্যে সংঘাতে জড়িত হয়েছে, যার সর্বশেষ শিকার উত্তরার ট্রাস্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্র আদনান কবির।
আদনান ছিল নাইনস্টার গ্রুপের। তাকে হত্যা করে ডিসকো গ্রুপের সদস্যরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সদস্য সংগ্রহ করে এসব গ্রুপের গ্যাং লিডাররা।
এদিকে, উত্তরায় সক্রিয় পাঁচটি গ্যাং পার্টির বখাটে সদস্যদের ব্যাপারে সচেতন করতে ভিন্নধর্মী কার্যক্রম হাতে নিয়েছে পুলিশ। আগামীকাল মঙ্গলবার উত্তরায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে সচেতনতামূলক সভা করা হবে। সেখানে গ্যাং পার্টির মাধ্যমে কীভাবে মেধাবী শিক্ষার্থীরা বখে গিয়ে অনিশ্চিত ভবিষ্যতের পথে পা বাড়িয়েছে, সে ব্যাপারেও তথ্য তুলে ধরা হবে।
উত্তরা বিভাগের ডিসি বিধান ত্রিপুরা এবিষয়ে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘কিশোর অপরাধ ও মাদকের ব্যাপারে সচেতন করতে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের পাশে চায় পুলিশ। এই লক্ষ্যে সচেতনতামূলক কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। আদনানের মতো আর কারও করুণ মৃত্যু হোক, এটা আমরা চাই না।’ 
প্রিয় সংবাদ/এআই/এনএইচএস   
Reactions:

0 comments:

NetworkedBlogs

Popular Posts

Recent Posts

Text Widget

Blog Archive