Total Pageviews

Its Awesome!

Friday, January 27, 2017

 11:31 AM         No comments
দেশের চিকিৎসকদের ফি আদায় নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে উঠেছে। সাধারণ মানুষদের নাগালের বাইরে চলে গেলেও ‘অন্য পেশার ক্ষেত্রে ফির বাধ্যবাধকতা নেই’, এই অজুহাতে ফি নির্ধারণে আপত্তি জানিয়ে আসছেন চিকিৎসকরা। এমন তথ্য উঠে এসেছে কালের কণ্ঠ-এর শুক্রবারের এক প্রতিবেদনে।


পত্রিকাটি জানায়, রাজধানীর নামিদামি হাসপাতল ও ক্লিনিকগুলোতে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ফি ১২০০ টাকা ছাড়িয়ে গেছে। এ ছাড়া ঢাকার বাইরের অনেক চিকিৎসক ও ৭০০ টাকা পর্যন্ত ফি আদায় করছেন।

এসব বিষয়ে সরকারেরই স্বাস্থ্য অর্থনীতি বিভাগের মহাপরিচালক আসাদুল ইসলাম পত্রিকাটিকে বলেন, ‘বিশ্বের বহু দেশে চিকিৎসকদের ফি বেঁধে দেওয়ার নজির রয়েছে। এটা করতে পারলে রোগীরা উপকৃত হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘চিকিৎসার প্রশ্নে শুরুতেই মানুষ চিন্তায় পড়ে ডাক্তারের ফি নিয়ে। এটা খুবই উদ্বেগজনক। অন্য পেশা আর চিকিৎসাসেবা পেশাকে এক পাল্লায় দেখা যাবে না।’

প্রতিবেদনে কয়েকজন রোগীর অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে প্রতিবেদক তুলে ধরেছেন যে দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ থাকা রোগীরা চিকিৎসা ব্যয় নিয়েই চিন্তিত হয়ে পড়ছেন। এসব চিকিৎসকের কাছে প্রথমবার গেলে ১২০০ থেকে ১৬০০ টাকা পর্যন্ত ফি নেওয়া হয়। এক মাসের মধ্যে দ্বিতীয়বার গেলে নেওয়া হয় ৮০০ থেকে ১০০০ টাকা।

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের বরাতে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘প্রতিদিন একজন চিকিৎসক রোগী দেখেন ৪০-৫০ জন করে। কেউ কেউ আরও বেশি রোগীও দেখেন। ফলে দিনে কেবল রোগীর ফি থেকেই তাদের দৈনিক আয় হয় ৪০-৫০ হাজার টাকা। এর বাইরে ল্যাবরেটরি, প্যাথলজি, ওষুধ কম্পানি, হাসপাতালের কমিশনসহ নানা মাধ্যমে আসে আরো কয়েক হাজার টাকা। এত টাকার পেছনে ছুটতে গিয়ে তাদের নীতিনৈতিকতা কিছুই থাকে না। প্রাইভেট প্র্যাকটিসের আড়ালে তারা এক ধরনের টাকার মেশিনে পরিণত হয়ে উঠছেন। চিকিৎসকদের এই প্রবণতা বন্ধ করা না গেলে দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থায় সেবাব্রত বা মানবিকতা বলে কিছুই থাকবে না।’

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘সরকার সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে এর আওতায় বিশেষ স্কিমের মাধ্যমে দরিদ্র শ্রেণির মানুষের জন্য বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে বেশি নজর দিচ্ছে।’

এদিকে, সরকারের পক্ষ থেকেও চিকিৎসকের ফি নির্ধারণ করার কোনো উদ্যোগ নেই। নতুন প্রস্তাবিত স্বাস্থ্যসেবা আইনের খসড়ায় কেবল ডাক্তারদের ফি নির্ধারণে সরকার পদক্ষেপ নেবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। কিন্তু ওই ফি কত হবে সে ব্যাপারে কিছু বলা হয়নি।

সূত্র: কালের কণ্ঠ
Reactions:

0 comments:

NetworkedBlogs

Popular Posts

Recent Posts

Text Widget

Blog Archive