Total Pageviews

Its Awesome!

Tuesday, December 6, 2016

 11:07 AM         No comments



মানুষের ঘাড় কশেরুকা বা ভারটিব্রি দিয়ে গঠিত, যা করোটি বা মাথার খুলি থেকে ধড় বা টরসো পর্যন্ত বিস্তৃত থাকে। ঘাড়ের হাড়, লিগামেন্ট ও পেশী মাথাকে সমর্থন করে এবং নড়াচড়া করতে সাহায্য করে। যেকোন ধরণের অস্বাভাবিকতা, প্রদাহ এবং আঘাত ঘাড়ে ব্যথার বা ঘাড় শক্ত হয়ে যাওয়ার কারণ।

আমরা অনেকেই ঘাড়ে ব্যথার বা ঘাড় শক্ত হয়ে যাওয়ার সমস্যায় ভুগে থাকি। অনেক ক্ষেত্রেই এটি হয়ে থাকে ভুল দেহ ভঙ্গির কারণে। কখনো কখনো ঘাড়ে ব্যথার কারণ হতে পারে পড়ে গিয়ে আঘাত পাওয়া, খেলাধুলা বা অসাবধানে দ্রুত ঘাড় ঘোরানো। ঘাড়ে ব্যথার কারণ ও এর রিস্ক ফ্যাক্টরগুলোর বিষয়ে জেনে নিই চলুন।
বিভিন্ন কারণে হয়ে থাকে ঘাড়ে ব্যথা যেমন-  
১। পেশীর টান
সাধারণত ভুল অঙ্গবিন্যাস, ডেস্কে কাজ করার সময় অবস্থানের পরিবর্তন না করা, ঘাড়ের উপর চাপ পড়ে এমন ভাবে ঘুমানো এবং ব্যায়ামের সময় ঘাড় ঝাঁকানো।
২। আঘাত
ঘাড় শরীরের আঘাত প্রবণ একটি স্থান, বিশেষ করে পড়ে গেলে, গাড়ী দুর্ঘটনা বা খেলাধুলার সময় ঘাড়ের পেশী ও লিগামেন্ট স্বাভাবিক অবস্থা থেকে সরে যেতে পারে। যদি সারভিক্যাল কশেরুকায় ফাটল দেখা দেয় তাহলে স্পাইনাল কর্ড বা স্নায়ুরজ্জুও ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে।মাথা অনেক জোরে ঝাঁকানো বা ঘোরানোর ফলে ঘাড়ে আঘাত পেলেতাকে “হুইপল্যাশ” বলে।
৩। হার্ট অ্যাটাক
হার্ট অ্যাটাকের একটি লক্ষণ হতে পারে ঘাড়ে ব্যথা। যদি ঘাড়ে ব্যথার পাশাপাশি হার্ট অ্যাটাকের অন্য লক্ষণগুলো যেমন- শ্বাসকষ্ট, ঘাম, বমি বমি ভাব, বমি হওয়া, বাহুতে বা চোয়ালে ব্যথাও থাকে তাহলে দ্রুত অ্যাম্বুলেন্স খবর দিন অথবা কাছাকাছি হাসপাতালের ইমারজেন্সিতে চলে যান।
৪। মেনিনজাইটিস
মস্তিষ্ক এবং স্নায়ুরজ্জুর চারপাশের পাতলা টিস্যুর প্রদাহকে মেনিনজাইটিস বলে। যাদের মেনিনজাইটিস আছে তাদের জ্বর ও মাথাব্যথার সাথে প্রায়ই ঘাড়ে ব্যথা ও থাকে।          
বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ঘাড়ে ব্যথা কোন মারাত্মক সমস্যা সৃষ্টি করেনা এবং কয়েক দিনের মধ্যেই এই ব্যথা থেকে মুক্ত হওয়া যায়। কিছু ক্ষেত্রে ঘাড়ে ব্যথা মারাত্মক আঘাত বা অসুস্থতাকে নির্দেশ করে, যার জন্য চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া প্রয়োজন হতে পারে। যদি আপনার ঘাড়ে ব্যথা এক সপ্তাহের বেশী থাকে, তীব্রতা অনেক বেশী হয় বা ঘাড় ব্যথার সাথে অন্য উপসর্গও দেখা যায় তাহলে অবিলম্বে চিকিৎসা সহায়তা নেয়া প্রয়োজন।
প্রিয় লাইফ/ সাবেরা খাতুন/রুমানা বৈশাখী 
Reactions:

0 comments:

NetworkedBlogs

Popular Posts

Recent Posts

Text Widget

Blog Archive