Total Pageviews

Its Awesome!

Thursday, December 12, 2013

 5:29 PM         No comments

Weight Loss With Drinks যদি আপনি ওজন কমাতে চান, তাহলে ওজন বৃদ্ধি করবে না এমন পাঁচ ধরনের পানীয়ের বর্ণনা দেওয়া হলো। প্রাকৃতিকভাবে স্বাস্থ্য কমানোর সবচেয়েভালে উপায়। চলুন দেখি, কিভাবে স্বাস্থ্য কমানো যায়ঃ



হানি পট অ্যান্ট !!!

পানি: পানি হচ্ছে ওজন কমানোর সবচেয়ে ভালো উপাদান। যদি সাধারণভাবে খেতে বিরক্তিবোধ করেন, তাহলে পানির সঙ্গে অল্প পরিমাণ লেবু, শসা এমনকি টমেটো যোগ করতে পারেন। তাতে বেশি ক্যালরি যোগ হবে না আবার আলাদা একটি ফ্লেভার পাবেন।
তরকারির জুস: ওজন কম রাখার জন্য তরকারির জুস খুবই ভালো একটি উপায়। এ জুসে একদিকে যেমন আঁশ থাকে, অন্যদিকে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ পুষ্টি থাকে। এ উপাদানগুলো শরীরের জ্বালানি হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ। এতে কম পরিমাণ সোডিয়াম পাবেন, যা আপনার জন্য উপকারী। এ ধরনের জুস আপনার মাঝে অন্যরকম সজীবতা নিয়ে আসবে, যা আপনাকে খুশি রাখতে অনেক সাহায্য করবে।
চিনিমুক্ত চা: সবুজ চা দেহের মাঝে সজীব পরিবর্তন আনয়নে সাহায্য করে এবং শরীরকে দ্রুত চাঙ্গা করে। চেষ্টা করুন এটি যেন গরম বা ঠাণ্ডা হয় এবং এতে যেন অল্প পরিমাণ কম চিনিবিশিষ্ট মধু থাকে। আর হ্যাঁ। রঙ চা-এর কথা ভুলবেন না। কারণ এতে অক্সিডেন্ট রয়েছে, যা আপনার শরীরকে নির্বিষকরণে সাহায্য করে।
কালো কফি: সকালে এক কাপ উষ্ণ কফি বা বিকেলে এক কাপ ঠাণ্ডা কফি যেমন ওজন কমাতে সাহায্য করে, তেমনই শরীরে উদ্দীপনা আনে। এ কফিতে এক ধরনের ক্যাফেইন রয়েছে, যা ক্ষুধা কমিয়ে রাখে। আবার স্নায়ু সচল রাখতে সাহায্য করে। তবে খেয়াল রাখবেন কফিতে যেন সর তোলা দুধ এবং অল্প পরিমাণ চিনি থাকে।
সর-তোলা দুধ: দুধ হচ্ছে অল্প পরিমাণ প্রোটিন, ভিটামিন ডি এবং ক্যালসিয়ামের চমৎকার উৎস। যা আপনার মাংসপেশিকে উন্নত করবে এবং হাড়কে মজবুত করবে। যারা খাওয়ার সময় চর্বি কম পরিমাণে পছন্দ করেন, তাদের জন্য সর-তোলা দুধ খুবই কার্যকর। যারা চর্বিকে প্রশ্রয় দিতে চান, তারা সর-তোলা দুধের সঙ্গে অল্প পরিমাণ চকোলেট যোগ করতে পারেন। কম চর্বিবিশিষ্ট চকোলেট দুধ কাজ-পরবর্তী সময়ে মাংসপেশি পুনর্গঠনে ভূমিকা রাখে।
Reactions:

0 comments:

NetworkedBlogs

Popular Posts

Recent Posts

Text Widget

Blog Archive