Total Pageviews

Its Awesome!

Wednesday, December 18, 2013

 12:06 AM         No comments

পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীন বিষয়ে বক্তব্য রাখা ও আদালতের রায় নিয়ে নিন্দা প্রস্তাব নেওয়ার প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। মঙ্গলবার বিকেলে বাংলাদেশে নিযুক্ত পাকিস্তানের হাইকমিশনার মিয়া আফরাসিয়াব মেহেদী হাশমি কোরেইশিকে তলব করে এই প্রতিবাদ জানানো হয়।
সোমবার পাকিস্তানের গণপরিষদে বাংলাদেশের যুদ্ধাপরাধীদের বিচার এবং মানবতাবিরোধী অপরাধী কাদের মোল্লার ফাঁসির বিষয়ে একটি নিন্দা প্রস্তাব নেওয়া হয়। পাকিস্তান জামায়াতের সাংসদ শের আকবর খান এই প্রস্তাব উত্থাপন করেন। আর তাতে সমর্থন জানায় সরকারি দল মুসলিম লিগ,ইমরান খানের তেহরিক-ই-ইনসাফ, আওয়ামী মুসলিম লিগ, পাকিস্তান মুসলিম লিগ (কায়েদে আজম) ও জমিয়তে উলামা ইসলাম। এই বিষয়টি নিয়ে সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খানসহ দেশটির কয়েকজন সংসদ সদস্য বক্তব্যও রাখেন।

পাকিস্তানের গণপরিষদে এই নিন্দা প্রস্তাব নেওয়ার কারনে মঙ্গলবার বিকেলে দেশটির হাইকমিশনারকে আজ তলব করে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়। তলবের পর বাংলাদেশের দ্বি-পাক্ষিক কনস্যুলার ও প্রশিক্ষণ বিষয়ক সচিব মোস্তফা কামালের সঙ্গে পাকিস্তানের হাইকমিশনারের মধ্যে বৈঠক হয়। এই বৈঠকে পাকিস্তান সরকারের প্রতি একটি প্রতিবাদ পত্র দেয় বাংলাদেশ সরকার। প্রায় এক ঘন্টার বৈঠক শেষে সন্ধ্যা ছয়টার দিকে পাকিস্তানের হাইকমিশনার পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে বেরিয়ে যান। তবে তিনি মিডিয়ার সামনে কোন কথা বলেননি।
সোমবার পাকিস্তানের গণপরিষদে নেওয়া নিন্দা প্রস্তাবে বলা হয়, বাংলাদেশের উচিত হবে না ৪২ বছর আগের পুরোনো ক্ষতকে নতুন করে জাগিয়ে তোলা। এতে বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধ সংক্রান্ত সব ধরনের মামলা ‘পারস্পরিক সমঝোতা’র ভিত্তিতে প্রত্যাহার করে নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়।
- See more at: http://www.priyo.com/2013/12/17/45794.html#sthash.toWX777z.dpuf
Reactions:

0 comments:

NetworkedBlogs

Popular Posts

Recent Posts

Text Widget

Blog Archive