Total Pageviews

Its Awesome!

Sunday, December 22, 2013

 6:47 PM         No comments

এফএনএস: দেশের চলমান সংকট ও সর্বশেষ রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার সন্ধ্যা পৌনে ছয়টায় খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

রোববার বিকেলে বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস সচিব মারুফ কামাল খান সোহেল স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 


মারুফ কামাল খান সাংবাদিকদের বলেন, দেশের চলমান সঙ্কট ও সর্বশেষ রাজনৈতিক পরিস্থিতির ওপর বিরোধীদলীয় নেতা ও ১৮ দলীয় জোটের নেতা খালেদা জিয়া দেশবাসীর উদ্দেশ্যে তার বক্তব্য তুলে ধরবেন।

নির্বাচন স্থগিত ও নির্দলীয় সরকারের দাবিতে চার দিনের অবরোধ কর্মসূচি শেষ হওয়ার এক ঘণ্টা পরই বিএনপি চেয়ারপারসনের এই সংবাদ সম্মেলন হচ্ছে।

বিএনপিবিহীন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের এগিয়ে যাওয়ার মধ্যে যুদ্ধাপরাধী আব্দুল কাদের মোল্লার মৃত্যুদণ্ড নিয়ে পাকিস্তান পার্লামেন্টের নিন্দা প্রস্তাব নিয়ে খালেদার নীরবতা নিয়েও প্রশ্ন তুলে আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে মতবিরোধে শেখ হাসিনার সর্বদলীয় সরকারের প্রস্তাব নাকচ করে গত ২১ অক্টোবর সংবাদ সম্মেলনে নিজের প্রস্তাব তুলে ধরেছিলেন খালেদা।

সাবেক উপদেষ্টাদের নিয়ে অন্তর্বতী সরকার গঠনের ওই প্রস্তাব সরকার গ্রহণ করেনি। অন্যদিকে ‘সর্বদলীয়’ সরকারে অংশ নেয়নি বিএনপি।

এরপর আওয়ামী লীগ ‘সর্বদলীয় সরকার’ গড়ে নির্বাচনের পথে এগিয়ে গেলে তার জবাবে হরতালের কর্মসূচি দিয়ে যায় ১৮ দল।

নভেম্বরের শেষ দিকে নির্বাচন কমিশন দশম সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করলে তা স্থগিতের দাবি জানিয়ে প্রায় টানা অবরোধ চালিয়ে যাচ্ছে তারা।

অবরোধের মধ্যে জাতিসংঘ মহাসচিবের দূত অস্কার ফার্নান্দেজ-তারানকোর মধ্যস্থতায় আওয়ামী লীগের সঙ্গে সংলাপে বসলেও কর্মসূচিতে যেমন ছাড় দেয়নি বিএনপি, তেমনি নির্বাচনের পথে এগিয়ে চলাও বন্ধ হয়নি সরকারি দলের।

এর মধ্যেই গত বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় না আসায় আগামী ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় দশম সংসদ নির্বাচনে তাদের অংশগ্রহণের সুযোগ এখন আর নেই।

তবে বিএনপির সঙ্গে সংলাপ চলবে জানিয়ে তিনি নতুন এক প্রস্তাবে বলেন, সংলাপে যদি সমঝোতা হয় এবং বিএনপি জামায়াতের সঙ্গ ছাড়ে এবং হত্যা বন্ধ করে তাহলে দশম সংসদ ভেঙে নতুন নির্বাচন দেয়া হবে।

এর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বিএনপি ওই প্রস্তাব নাকচ করে তাদের দাবি মেনে দশম সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের আহ্বান জানায়। তবে ওই প্রস্তাবের পর মঙ্গলবারই প্রথম আনুষ্ঠানিক বক্তব্য নিয়ে আসছেন বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়া।
Reactions:

0 comments:

NetworkedBlogs

Popular Posts

Recent Posts

Text Widget

Blog Archive